ব্রেকিং:
কুমিল্লায় শ্যামলী পরিবহনের বাসচাপায় নিহত ৩ কুমিল্লায় গ্রাহকদের ৪০ কোটি টাকা নিয়ে কোম্পানি উধাও ড্রিমলাইনার ‘রাজহংস’ এখন ঢাকায় দাউদকান্দিতে প্রতিবন্ধি কিশোরীকে ধর্ষণ: মামলা দায়ের লালমাই আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন আগে খাল উদ্ধার তারপর চালু হবে ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট : তাজুল ইসলাম সংবাদকর্মীদের বেতন বাড়ল ৮৫ শতাংশ ফার্ম করে স্বাবলম্বী এক ঝাঁক তরুণ মুরাদনগরে শিশু ধর্ষনের ঘটনায় মাতব্বর গ্রেফতার হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে ইউএই সোয়া কোটি টাকা লুটের অভিযোগে প্রতারক জামাল গ্রেফতার প্রাইভেটের পথে স্কুল ছাত্রীকে ছুরিকাঘাত ব্রাহ্মণপাড়ায় গ্রেফতার চার আসামি কারাগারে প্রধানমন্ত্রী পুলিশের প্যারেড পরিদর্শন করবেন আজ আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন ডিসেম্বরে শোভন-রাব্বানী বাদ, ছাত্রলীগের দায়িত্বে নাহিয়ান-লেখক কুমিল্লার ভারতীয় সীমান্ত থেকে চোরাইমালসহ ২ জন আটক আন্তর্জাতিক কোরআন প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় কুমিল্লার শিহাব লাকসামে অস্ত্রসহ কিশোর গ্যাংয়ের ছয় সদস্য আটক বদলে যাচ্ছে কারিগরি শিক্ষা, ৪০০ কোটি টাকার পরিকল্পনা

সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   ভাদ্র ৩১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
৭৭

সেহরীর সময় গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টাঃ বাঁধা দেয়ায় স্বামী খুন

প্রকাশিত: ১ জুন ২০১৯  

চান্দিনায় সেহেরী রান্নার সময়, এক গৃহবধূকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টায় বাঁধা দেওয়ায়, ছুড়িকাঘাতে স্বামীকে খুন করেছে প্রতিবেশি মামা। এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে চান্দিনা থানা পুলিশ। 
চান্দিনা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের ছায়কোট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূর স্বামী নিহত ফারুক হোসেন (২৬) ছায়কোট এলাকার মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে। 
এ ঘটনায় নিহতের প্রতিবেশি দুই মামা হত্যাকারী জানে আলম (৩৫) ও তার ভাই মোর্সেদ (৩৭)কে আটক করেছে চান্দিনা থানা পুলিশ। তারা একই এলাকার রহমান ড্রাইভারের ছেলে। 
স্থানীয় ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গৃহবধূকে ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনাটি ঘটে রাত ২টায়। আর ওই ঘটনার রেশ ধরে র ইফতারের পর গৃহবধূর স্বামীকে ছুরিকাঘাত করে ধর্ষণের চেষ্টাকারী জানে আলম। পরে রাত ১টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু ঘটে তার। 
নিহতের মা নাছিমা বেগম জানান, আমার পুত্রবধূ বিপুলী বেগম রান্না ঘরে সেহেরী তৈরি করছিল। এ  সময় প্রতিবেশী জানে আলম আমার পুত্রবধূকে রান্নাঘর থেকে মুখ চেপে ধরে পাশের একটি জমিতে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় গৃহবধূ বিপুলী বেগম এর চিৎকার শুনে আমার দুই ছেলে ফারুক ও জালাল সহ বাড়ির লোকজন বের হয়। এসময় জানেআলম তাকে ছেড়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনার পরপর আমার দুই ছেলে সহ অন্যান্যরা জানে আলম এর বাড়িতে গেলে, জানে আলম উল্টো আমার ছেলেদের মেরে ফেরার হুমকি দেয়। 
পরদিন আমরা এলাকার কাউন্সিলরসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের বিষয়টি জানাই এবং তারা জানে আলম এর বাড়িতে গিয়ে তাকে পায়নি। ভোর থেকেই জানে আলম আত্মগোপন করে। 
ইফতারের পর প্রচন্ড গরমে আমার ছেলে ফারুক হোসেন আমাদের বসত ঘর সংলগ্ন একটি  গাছের নিচে দাঁড়িয়ে বিশ্রাম নিচ্ছিল। এ সময় জানে আলম ও তার ভাই মোর্সেদ এসে বিষয়টি কেন এলাকায় জানাজানি হলো বলেই আমার ছেলের পেটে ছুড়িকাঘাত করে পালিয়ে যায়। 
ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল সালাম জানান, দুইটি পরিবারই হতদরিদ্র। তবে জানে আলম মাদকাসক্ত এবং চরিত্রহীন। ভোর রাতের সেহেরী তৈরি করার উদ্দেশ্যেই গৃহবধূ বিপুলী বেগম বাহিরের রান্না ঘরে রান্না করছিল। এ সময় গৃহবধূকে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে জানেআলম। ঘটনার পর সে আত্মগোপন করে এবং সন্ধ্যায় ফারুককে হত্যা করার উদ্দেশ্যেই ছুড়ি নিয়ে বাড়িতে আসে। 
এ ব্যাপারে চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আবুল ফয়সল জানান, ছুড়িকাঘাত করার পরপর নিহতের মা নাছিমা বেগম বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে, আমরা রাত ৯টায় ধর্ষণের ও হত্যার চেষ্টার অভিযোগে মামলা গ্রহণ করি। রাত সাড়ে ১২টার মধ্যে ঘটনার মূলহোতা জানে আলম সহ তার বড় ভাই মোর্সেদকে আটক করি। রাত অনুমান ১টার দিকে ঢামেকে মৃত্যু ঘটে ছুড়িকাঘাতে আহত ফারুক হোসেন এর। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি
এই বিভাগের আরো খবর