ব্রেকিং:
দেবিদ্বারে উ. জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সম্পাদকের আঙ্গুল কর্তন কমলাপুর চাইল্ড হেভেন স্কুলে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পান বোঝাই পিক-আপ থেকে ৫৪ হাজার পিস ইয়াবা লালমাই পাহাড়ের কাঁঠালের ম–ম ঘ্রাণ তিতাশে মাটির পাতিল থেকে বের হচ্ছিল কান্নার আওয়াজ প্রধানমন্ত্রী দিল্লি যাচ্ছেন ২১ জুন নৌকায় লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে নিহত ১০, জীবিত ৩০ বাংলাদেশি মাস্কের টুইটে উত্তাল ভারতের রাজনীতি চার মাসে বিদেশে চাকরি কমেছে ২০ শতাংশ রাজধানীর বড় বড় হাসপাতাল যেন ‘বাতির নিচে অন্ধকার’ ঈদের দিন যেসব উন্নত খাবার পেলেন কারাবন্দিরা আসুন ত্যাগের মহিমায় দেশ ও মানুষের কল্যাণে কাজ করি হাসিল নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল বাজারে লঙ্কাকাণ্ড টিনের বেড়ায় বিদ্যুতের তার চাঁদপুরে অর্ধশত গ্রামে ঈদ উদযাপন স্বস্তিতে ঘরমুখো মানুষ যেভাবে গড়ে ওঠে শতবর্ষী কুমিল্লা কেন্দ্রীয় ঈদগাহ বেশি ভাড়া রাখায় উপকূল পরিবহনকে জরিমানা মিয়ানমার সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ রাখাইনে বড় সংঘাতের আশঙ্কা, বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নির্দেশ
  • বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

স্ত্রীকে ভিডিও কলে রেখে যে কারণে ফাঁস নিলেন প্রবাসী স্বামী

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২৩  

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে স্ত্রীকে ভিডিও কলে রেখে সাদ্দাম হোসেন (২৮) নামে কুয়েত প্রবাসী এক যুবক ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত শেষে সোমবার (১৫ মে) বিকেলে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

মৃত ওই যুবক উপজেলার ঝলম (দক্ষিণ) ইউনিয়নের নরহরিপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে। 

ওই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আশিকুর রহমান হাওলাদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৮ বছর আগে ঝলম (দক্ষিণ) ইউনিয়নের নরহরিপুর গ্রামের বড় বাড়ির আবদুল হাকিমের ছেলে কুয়েত প্রবাসী মো. সাদ্দাম হোসেনের সঙ্গে একই ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের আমিন বাড়ির সামছুল হকের মেয়ে নাছিমা বেগমের সামাজিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবন কিছুদিন ভালো কাটলেও পরে নানা অজুহাতে পারিবারিক কলহ শুরু হয়।

ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহের জের ধরেই আগের দিন রোববার (১৪ মে) বিকেলে নিজ ঘরে ওই যুবক আত্মহত্যা করেন।

একাধিক সূত্র জানিয়েছে, এবার রমজানের ঈদের পর প্রবাস থেকে বাড়ি আসেন সাদ্দাম। বাড়ি আসার পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই নানা কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। একপর্যায়ে তাদের ঝগড়া-বিবাদ চরম আকার ধারণ করে। ঘটনার দু’দিন আগে শুক্রবার সাদ্দামের স্ত্রী তার সন্তানকে নিয়ে মির্জাপুর বাবার বাড়ি চলে যান। 

এদিকে রোববার বিকেলে নিজ ঘরের দরজা বন্ধ করে সাদ্দাম তার স্ত্রী নাজমাকে মোবাইলে ভিডিও কল দেন। ওই সময় স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগান সাদ্দাম। এমতাবস্থায় সাদ্দামের স্ত্রী নাজমা শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে ফোন করে ঘটনা জানালে তারা ঘরের বন্ধ দরজা ভেঙে সাদ্দামকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে মনোহরগঞ্জ থানার ওসি মো. শফিউল আলম জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।