ব্রেকিং:
ভুল নীতিতে ডুবছে পাকিস্তান, সঠিক নীতিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ চলমান ‘লকডাউন’ ২৩ মে পর্যন্ত বাড়ছে : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর নামে সড়ক, শেখ হাসিনার নামে বাড়ি ফিলিস্তিনে পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন, বাংলাদেশিদের রবিবার থেকে এনওসি দেওয়া হবে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের চার দশক পূর্তিতে তথ্যচিত্র ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘টাউকটে’ তিন ওয়ানডে খেলতে ঢাকায় শ্রীলংকা ক্রিকেট দল ইসরায়েলকে সমর্থন জানিয়ে বাইডেনের ফোন ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলায় নিহত বেড়ে ১৪৯ ফের বাড়ল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ঈদ উপলক্ষে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার আরো সাতদিন বাড়ছে লকডাউন, রোববার প্রজ্ঞাপন করোনায় ভাই হারালেন মমতা ব্যাংক-বিমা ও শেয়ারবাজার খুলছে কাল গাজায় ৪০ মিনিটে ৪৫০ ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল ইসরায়েল স্বাস্থ্যবিধি পালনে সর্বোচ্চ সতর্কতার আহ্বান কাদেরের দেশেই টিকা উৎপাদনের ব্যবস্থা নিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী উপকূলের ঘরে ঘরে ডিজিটাল ব্যাংক ভারতে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের ফেরার ব্যবস্থা ঈদের পর বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ের সর্বোচ্চ রেকর্ড
  • রোববার   ১৬ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২ ১৪২৮

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪২

স্ত্রী-কন্যার সামনে স্কুল শিক্ষককে লাঞ্ছনা

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২২ এপ্রিল ২০২১  

কুমিল্লার হোমনায় পূর্বশত্রুতার জেরে মেয়ে ও স্ত্রীর সামনে একজন স্কুল শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে। লাঞ্ছিতের ঘটনায় মো. শাহ আলম নকুল নামে একব্যক্তিসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে হোমনা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। মঙ্গলবার (২০) সন্ধ্যায় হোমনা উপজেলার আসাদপুর ইউনিয়নের পাথালিয়াকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, উপজেলার দুলালপুর চন্দ্রমণি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক এসএএম রাজটিকা ইফতার শেষে তার শ্বশুরবাড়ি ঘনিয়ারচর যাওয়ার সময় রাস্তার মাঝে একই গ্রামের মো. শাহ আলম নকুলের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা তার ওপর হামলা করে। এতে বাধা দিতে গেলে তার স্ত্রী ও দুই মেয়েও লাঞ্ছিত হন। পরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে হোমনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাদের ভর্তি করা হয়।
এদিকে একজন মানুষ গড়ার কারিগর সবার প্রিয় শিক্ষক ‘রাজটিকা স্যার’কে তার মেয়েদের সামনে এভাবে লাঞ্ছিতের ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন এলাকাবাসী, ছাত্র ও শিক্ষক সমাজ। এমন ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শান্তি দাবি করেন তারা।
এ বিষয়ে শিক্ষক এসএএম রাজটিকা জানান, মো. শাহ আলমের নেতৃত্বে আমার ওপর পরিকল্পিতভাবে সন্ত্রাসী হামলা করা হয়েছে। আমার স্ত্রী ও মেয়েদের লাঞ্ছিত করা হয়েছে। বিচার চেয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।
এদিকে মো. শাহ আলম নকুল বলেন, তার মেয়ে অপহরণ মামলায় আমার ছেলের নামে মিথ্যা মামলা দিয়েছিলেন। এর পর থেকে রাজটিকার পরিবারের সঙ্গে আমার পরিবারের বিরোধ চলে আসছে। মঙ্গলবার আমি মাগরিবের নামাজ শেষে রাস্তায় বাহির হলে তার স্ত্রী, মেয়েসহ আমাকে মারধর করে আমার জামাকাপড় ছিঁড়ে ফেলে। আমিও থানায় অভিযোগ দিয়েছি।
হোমনা থানার ওসি আবুল কায়েস আকন্দ জানান, পারিবারিক শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। উভয়পক্ষই থানায় অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত ছাড়া এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।