ব্রেকিং:
জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা ও পুরুষের দায়িত্ব বিষয়ক সভা শীতকালীন প্রতিযোগিতা উপলক্ষে শিক্ষা বোর্ডের প্রস্তুতি বিজয় দিবস উপলক্ষে মাসব্যাপী কর্মসূচী উদ্বোধন দুদিন পর গোমতী থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার রিয়েলিটি শো উদ্ভাবকের খোঁজে- সিজন ২পুরস্কার বাহরাইনে কুমিল্লার যুবককে ৭ তলার ছাদ থেকে ফেলে হত্যা মধ্যরাতে শীতার্তদের পাশে জেলা প্রশাসক ডিজিটাল হাজিরা মেশিন স্থাপনে অনিয়মের অভিযোগ পুলিশ পরিচয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা ব্যাংকের ভল্টের তালা ভেঙ্গে টাকা লুট ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারে আগ্রহ নেই পথচারিদের নিমসার বাজার উচ্ছেদে হাইকোর্টের নির্দেশ ছয়টি নিয়ম মানলেই সিজার এড়ানো সম্ভব! স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ও পরিচালককে হাইকোর্টে তলব ঢাবিতে স্যানিটারি ন্যাপকিনের ভেন্ডিং মেশিন উদ্বোধন জটিল প্রশ্নের জবাব দিতে সহায়তা করবে ফেসবুক বাংলাদেশ ব্যাংককে সহযোগিতা করবে ফিলিপাইন শীতে ক্ষুদে সদস্যদের আরামদায়ক পোশাক নির্বাচন ঘুষ না খেলে চাকরি চলে যাবে, করণীয় কী? আইপিএল খেলতে আগ্রহী যে ছয় বাংলাদেশি

বৃহস্পতিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৬   ০৭ রবিউস সানি ১৪৪১

কুমিল্লার ধ্বনি
১০২৮

স্বপ্ন মনে রাখার পাঁচ উপায়

প্রকাশিত: ১৮ জুন ২০১৯  

ঘুম মানব জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর ঘুমেরই একটি অন্যতম অংশ হল স্বপ্ন। ঘুমের মধ্যে আমরা কত স্বপ্ন দেখি তার কোনো ইয়াত্তা নেই! স্বপ্নের সে অদ্ভুত জায়গাগুলো, সেই অনুভূতিগুলো মনে থাকে ক’জনের? অথচ অনেক সময় এগুলো মনে রাখা যথেষ্ট জরুরি। কারণ ওগুলো আমাদের অবচেতন মনের আকাঙখা। যা হয়তো জীবনকে দিতে পারতো নতুন কোনো অনুপ্রেরণা। চলুন আজ জেনে নেই এমন পাঁচটি উপায়, যা আপনাকে স্বপ্নের কথা মনে রাখতে সাহায্য করবে।

রিমাইন্ডার দিয়ে রাখুন নিজেকে: যখন আপনি ঘুম থেকে উঠবেন ঠিক তখনই নিজেকে রিমাইন্ডার দিয়ে রাখুন যে, আমি যে স্বপ্নটি দেখেছি তা মাথায় রাখতে হবে। খুব অদ্ভুতভাবে আপনার মাথায় স্বপ্নটি থেকে যাবে। স্বপ্ন মনে রাখার ক্ষেত্রে এই পদ্ধতিটি কাজে লাগে সবচেয়ে বেশি। অথবা ছোট একটা কাগজে লিখে রাখুন, ‘আমি আমার স্বপ্ন মনে রাখতে পারছি।’ আপনি যখনই সে কাগজে চোখ বোলাবেন তখনই তা মনে পড়বে।

চিহ্নিত করুন: অনেকেই স্বপ্ন দেখা মাত্রই চোখ বন্ধ অবস্থায় স্বপ্ন মনে রাখতে পারেন। কিন্তু সবার বেলায় একটি স্বপ্ন চিহ্নিত করে রাখতে হয়৷ যেমন ঠিক ঘুম ভাঙতেই একটি নির্দিষ্ট বস্তুকে লক্ষ্য করে একটা চিহ্ন দিয়ে রাখতে পারেন। যাতে পরবর্তীতে ওই নির্দিষ্ট বস্তু দেখার সঙ্গে সঙ্গেই আপনার মনে পড়ে যায়। এর বিভিন্ন প্রমাণ গবেষকরা অসংখ্য মানুষের উপর পরীক্ষা করে ভালো ফলাফল পেয়েছেন।

পর্যবেক্ষণ ক্ষমতা: যদি কারো পর্যবেক্ষণ ক্ষমতা বেশি থাকে তবে তার স্বপ্নের নিঁখুততা থাকে বেশি। অর্থাৎ এসব মানুষের স্বপ্নের খুঁটিনাটিও খুব স্পষ্টভাবে মনে থাকে। আপনি যদি নিয়মিত আপনার পর্যবেক্ষণ ক্ষমতা বাড়াতে থাকেন তাহলে স্বপ্ন মনে থাকার ক্ষমতা বাড়বে। এক অবসর সময়, যেমন বিকেলে জানালার দিকে তাকিয়ে দেখুন, আর ভাবুন আপনি স্বপ্ন দেখছেন। খুব ভালোমতো দেখুন জানালার ওপাশের রঙ কী? কোন ঋতুকাল চলছে? বসে থাকা মানুষটা কী ভাবছে? বাচ্চা শিশুটি কীভাবে হাঁটছে? ফেরিওয়ালা কী বলে ডাকছে?  আপনি কি কিছু অনুভব করতে পারছেন? এভাবে আপনার ভাবনাগুলো দিনলিপিতে লিখে ফেলুন। শিরোনাম দিন স্বপ্ন!

ফ্রেশ ঘুম: আপনি পরবর্তী স্বপ্ন মনে করার প্রস্তুতিস্বরুপ পরদিন একটি ফ্রেশ ঘুম দিন। যখন একটি ঘুম পরিপূর্ণ হয় তখন খুব সহজেই স্বপ্নের কথা মনে পড়ে যায়। সে কারণে সুন্দর, স্বাস্থ্যকর ঘুম প্রয়োজন। গবেষকরা বলেন, ঘুমানোর প্রথম ৪ থেকে ৬ ঘণ্টার মধ্যবর্তী সময় স্বপ্নগুলো হয় স্মৃতি থেকে। যে কারণে অন্তত ৮ ঘণ্টা একটানা ঘুমালে স্বপ্নের কথা খুব সহজে মনে পড়ে যায়।

ডায়েরি লেখা: কখনো কখনো এমন হয়, হঠাৎ কোনো স্বপ্ন অর্ধেক অবস্থাতেই আমাদের ঘুম ভেঙে যায়। পরবর্তীতে সে স্বপ্নটি আর দেখা সম্ভব হয় না। কিন্তু আপনি জানেন কি? যদি স্বপ্ন দেখতে দেখতে ঘুম ভাঙ্গার পরে পুনঃরায় ঘুমান বা চোখ না খুলেন তবে আবার ওই স্বপ্ন দেখতে থাকবেন। গবেষকরা বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত আপনার স্বপ্ন পূর্ণ না হয়েছে ততক্ষণ পর্যন্ত ঘুম ভাঙলেও চোখ না খুলতে। তাতে পরবর্তীতে ঘুম ভাঙার পর স্বপ্নটি পরিপূর্ণ রূপে একটি ডায়েরিতে সে গল্পটি লিখে রাখুন। যাতে করে আপনার অবচেতন মনের গল্পটি না হারিয়ে যায়।

এছাড়া আরো বেশ কিছু কাজ করলে আপনি স্বপ্ন মনে রাখতে পারবেন। যে স্বপ্নগুলো খুব আকষর্ণীয়, উত্তেজনাপূর্ণ আর প্রাণবন্ত সে স্বপ্নগুলো মনে রাখা সহজ। সে কারণে যে কোনো স্বপ্নকে প্রাণবন্ত করতে পারলে সে স্বপ্ন মনে রাখা যায় খুব সহজেই। গবেষকরা সে কারণে বলেন, নিদ্রা ভঙ্গের পরপর আকর্ষণীয় কিছু করলে রাতে দেখা স্বপ্নগুলো মনে পড়ে সহজেই।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লার ধ্বনি