ব্রেকিং:
সড়কে বিনিয়োগে আগ্রহী বিশ্বব্যাংক ২০০১-২০০৬, বিএনপির শাসনামলে দুর্নীতিতে বিপর্যস্ত বাংলাদেশ! সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ অনলাইনের আওতায় আসছে বিবাহ ও তালাক নিবন্ধন নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ধন্যবাদ সর্বপ্রথম ভ্যাকসিন নিতে অর্থমন্ত্রীর আগ্রহ প্রকাশ ভারতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, নিহত ৮ অবশেষে ফেব্রুয়ারিতে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শনিবার ঘর পাচ্ছে ৬৬ হাজার ১৮৯ পরিবার পূর্ব ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন অস্ত্র উঁচিয়ে গ্রামের লোকজনকে ধাওয়া আইন থাকলেও শিক্ষা ছুটির সুবিধা নেই কু.বি’তে চাঁদপুরে অনলাইন জুয়ারী গ্রেফতার, নগদ টাকাসহ সরঞ্জাম উদ্ধার চাঁদপুরের মতলব উত্তরে সাত স্থানে ১৪৪ ধারা জারি চাঁদপুরে ৫০ বছর পর সুন্দরী খাল সংস্কার কুমিল্লায় অতিথি পাখির মিলনমেলা অপেক্ষমাণদের তালিকা থেকে সরকারি মাধ্যমিকে ভর্তি শুরু শেয়ারবাজারে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে কারাগারের বদলে ৪৯ শিশুকে বই দিয়ে বাড়ি পাঠালেন আদালত আল্লায় শেখের বেটিরে বাঁচায়ে রাহুক
  • শুক্রবার   ২২ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১০ ১৪২৭

  • || ০৮ জমাদিউস সানি ১৪৪২

১৩৯

হত্যার রহস্য উদঘাটনে দেখতে হলো ৪০০ ঘণ্টার সিসিটিভি ফুটেজ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর ২০২০  

কুমিল্লার লালমাই উপজেলার কিশোর শাহপরান হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। প্রায় এক মাস পর এ হত্যার রহস্য উদঘাটন করা হয়। একইসঙ্গে গ্রেফতার করা হয়েছে হত্যাকাণ্ডে জড়িত প্রধান আসামি নুর উদ্দিনসহ চারজনকে।

ব্যাটারিচালিত একটি অটোরিকশার জন্যই শাহপরানকে হত্যা করা হয়। নিহত শাহপরান উপজেলার বেতাগাঁও গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। সে লালমাই থানার বড় চলুন্ডা ব্র্যাক স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিল।

জেলার লাকসাম থেকে বাগমারা সড়কের ১৩টি সিসি ক্যামেরার প্রায় ৪০০ ঘণ্টার ফুটেজ বিশ্লেষণ করে এ হত্যার রহস্য বের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার নিজ কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন কুমিল্লার অ্যাডিশনাল এসপি আজিম উল আহসান।

তিনি বলেন, ১১ সেপ্টেম্বর সকালে বড় ভাইয়ের ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা মেরামত করতে বাগমারা বাজারে যায় শাহপরান। পরে আর সে বাড়ি ফেরেনি। তাকে খুঁজতে এলাকায় মাইকিং করে স্বজনরা। ওই দিন সন্ধ্যায় ডাকাতিয়া নদীর পাশের একটি ঝোপ থেকে হাত-পা ও গলায় রশি বাঁধা অবস্থায় শাহপরানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন শাহপরানের বাবা আব্দুল মালেক।

আজিম উল আহসান বলেন, মামলার পর ওই সড়কের ১৩টি সিসি ক্যামেরার ৪০০ ঘণ্টার ফুটেজ বিশ্লেষণ করা হয়। ফুটেজের একটি অংশে পাঁচ সেকেন্ডের ভিডিওতে অটোরিকশাসহ শাহপরান এবং নুর উদ্দিনকে দেখা যায়। এরপর নুর উদ্দিনকে গ্রেফতার করতে অভিযান শুরু করে পুলিশ।

বুধবার জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে নুর উদ্দিনসহ অন্যদের গ্রেফতার করা হয়। এরপরই ঘটনার রহস্য বেরিয়ে আসে। ভাড়ায় অটোরিকশায় উঠে শাহপরানকে হত্যা করে ঝোপের ভেতর লাশ রেখে অটোরিকশা নিয়ে পালিয়ে যান নুর উদ্দিন। অটোরিকশাটি লাকসাম নিয়ে গোলাপ হোসেনের কাছে ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করেন তিনি।

গ্রেফতার নুর উদ্দিন লালমাই উপজেলার জয়নগর গ্রামের দুধু মিয়ার ছেলে। গ্রেফতার অন্যরা হলেন- একই উপজেলার নাগরীপাড়া গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের ছেলে শহীদ উল্লাহ, ভুলুইন গ্রামের আবুল হাসমের ছেলে গোলাপ হোসেন ও লাকসাম উপজেলার শামসুল হকের ছেলে নাছির উদ্দিন।

লালমাই থানার ওসি মোহাম্মদ আইয়ুব বলেন, আমাদের হাতে এ হত্যাকাণ্ডের কোনো ক্লু ছিল না। সিসিটিভির ফুটেজে খুনি নুর উদ্দিনকে শনাক্ত করা হয়। এরপর বুধবার তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় তাকেসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ছিনতাই হওয়া অটোরিকশাসহ অন্যান্য আলামত উদ্ধার করা হয়।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর