ব্রেকিং:
বিয়ের দিন বাড়িতে হাজির প্রথম স্ত্রী হাসপাতালে ভর্তি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ৫০ থেকে একশ শয্যায় উন্নীত হবে সব হাসপাতাল সেপটিক ট্যাংকে নেমে প্রাণ গেল ২ রাজমিস্ত্রির মজুতদারি করে কারসাজি করলে কঠোর ব্যবস্থা ইঞ্জিনে ওভার হিট, মহাখালীতে প্রাইভেটকারে আগুন ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন ট্রাম্প অবশেষে ঝুঁকিপূর্ণ তিন রাস্তার সংযোগস্থলে গতিরোধক স্থাপন বাঙালি বিশ্ব মোড়লদের ধার ধারে না: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী যেসব কারণে ব্যাপক চাপ থাকবে সড়কে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে সরকারের কোটা সংক্রান্ত পরিপত্র বলবৎ হয়েছে পানি নিষ্কাশনে ডিএনসিসির ৫ হাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মী কাজ করছে সময় টিভির সাংবাদিকদের উপর কোটা বিরোধীদের হামলা প্রধানমন্ত্রীর অন্তর্ভুক্তিমূলক সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি গাজায় ‘যুদ্ধাবসানের সময় এসেছে’: বাইডেন ন্যাটো-রাশিয়াকে সংঘাতের ব্যাপারে সতর্ক করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রাজধানীসহ সারাদেশে ভারী বৃষ্টি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুতে ইতিবাচক মিয়ানমার চীনা গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

হোমনায় ইউএনও’র বিরুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যানের অভিযোগ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০২৪  

কুমিল্লার হোমনায় মেম্বারদের সাথে সমন্বয় করে বিজিএফের  চাল  বিতরণ করতে বলায়  গত ২০ জুন ইউএনও’র বিরুদ্ধে চান্দেরচর  ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোজাম্মেল হক জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে   লিখিত  অভিযোগ দিয়েছেন।
অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেছেন, ১৬ জুন সকাল সোয়া ১০ টায়  ইউপি সচিবের নেতৃত্বে  চান্দেরচর ইউনিয়ন পরিষদে  বিজিএফ এর চাল বিতরণ শুরু হয়। তবে অসুস্থতার কারণে তিনি এতে উপস্থিত ছিলেন না।  এ সময় ওই ইউনিয়নের ৫ নং  ওয়ার্ডের সদস্য হেলাল উদ্দিন ৮নং ওয়ার্ডের মাসুদ রানা এবং  সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার(৪,৫,৬) শাহনাজ পারভীন চাল বিতরণে বাধা দেন। তখন তিনি ইউএনও ও পিআইওকে মুঠোফোনে কল দিলে তারা ফোন রিসিভ করেন নাই। পরে  হোমনার থানার ওসিকে পুলিশ ফোর্স পাঠানোর জন্য ফোন দিলে তিনি ফোর্স পাঠাবে বলে ফোর্স পাঠাননি।  পরে  চেয়ারম্যান ইউএনওকে পুনরায় ফোন দেন এবং বিস্তারিত জানান। তখন ইউএনও মুঠোফোনে মেম্বারদের সঙ্গে সমন্বয় করে চাল বিতরণের নির্দেশ দেন। এ সময়  ইউপি চেয়ারম্যান  ইউএনও কে বলেন, মেম্বারদের  লিস্ট মোতাবেক ১১ জুন তাদের চাল  বিতরণ হয়ে গেছে। এখন কেন মেম্বারদের সঙ্গে সমন্বয় করে চাল দেবো। তখন ইউএনও  চেয়ারম্যানকে ‘বেয়াদব’ বলে গালি দেন ও সামনে থাকলে ‘গুলি’ করবেন বলে হুমকি দেন।
অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে   ইউএনও ক্ষেমালিকা চাকমা অভিযোগ অস্বীকার করে  বলেন, এর আগেও ওই ইউপি চেয়ারম্যান চাল নিয়ে নয়ছয় করেছিলেন। মেম্বারদের সাথে তাঁর সম্পর্ক ভাল না। কয়েক মাস আগে ১২ জন মেম্বার তার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন।  ঈদ উপলক্ষে  ১১ জুন  ১২৯৭ জনের  মধ্যে ৯৯৭ জনের মাঝে বিজিএফ  বিতরণ করে  বাকি চাল গোডাউনে রেখেদেয়। কিন্ত মেম্বারদের  বাধা পেয়ে উল্টো মেম্বার সহ  আমার বিরুদ্ধে  অভিযোগ আনছেন।
 আমি তাকে  গুলি করতে কেন বলবো?  প্রধানমন্ত্রীর  উপহারের বিজিএফ  ঈদের আগে বিতরণ করার কথা থাকলেও তিনি চাল বিতরণ না করে  গোডাউনে রেখে দিয়েছেন। চাপে পড়ে ঈদের আগের দিন চাল বিতরণ করতে বাধ্য হয়েছে। তার বিরুদ্ধে  অনিয়ম গুলো ধরা পড়ার ভয়ে তিনি এই অভিযোগ করছেন।
জানা যায়, ঈদুল আজহা উপলক্ষে  ৪ নং চান্দেরচর ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রী উপহার  হিসাবে ১০ কেজি করে চাল  ১২৯৭ জনের মধ্যে বিতরণের জন্য  ১২ হাজার ৯৭০ কেজি চাল বরাদ্ধ পায়। কিন্ত  চেয়ারম্যান ঢাকায় অবস্থান করায় গত ১১ জুন  ইউপি সচিব ১২৯৭ টি কার্ডের মধ্যে ৯৯৭ টি কার্ডের চাল বিতরণ করেন।  বাকি কার্ডের ১২৫ বস্তা চাল বিতরণ না করে  গোডাউনে রেখে দেয়া হয়।
পরে প্রশাসনের চাপে পরে   ঈদের আগের দিন অর্থাৎ ১৬ জুন   ইউপি সচিব  ইউনিয়ন পরিষদে  মেম্বারদের উপস্থিতিতে  চাল বিতরণ করতে গেলে মেম্বারগণ এ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিষদগার করেন।
ইউপি সদস্য হেলাল উদ্দিন জানান, ১২৯৭ টি কার্ডের মধ্যে প্রত্যেক মেম্বার ৬০ টি এবং মহিলা মেম্বার ৩০ টি করে মোট ৬৩০ জনের তালিকা দেয়া হয়েছে বাকি নাম চেয়ারম্যানের দিয়েছেন। কিন্ত আমাদের  নামসহ ৯৯৭ টি নামের চাল বিতরণ করা হয়। কিন্ত বাকি নামের   চাল গোডাউনে  রয়েছে। এ চাল কার মাঝে বিতরণ করা হবে সেই তালিকা  দেখতে চাইলে  সচিবের সাথে  আমাদের কথা কাটাকাটি হয়। পরে  ইউএনও ' স্যার এর নির্দেশে চেয়ারম্যানের তালিকার লোকজনের মাঝে বিজিএফ এর চাল বিতরণ করা হয়।