ব্রেকিং:
১৬ই ডিসেম্বরের মধ্যে রাজাকারের তালিকা প্রকাশ ২৭ জানুয়ারি করোনার প্রথম টিকা পাবেন কুর্মিটোলার নার্স আন্তর্জাতিক মানের করা হচ্ছে মাদরাসা শিক্ষাকে ১৮ ফসলের ১১২ জাত আবিষ্কার করেছে বিনা শ্রমবাজারে নতুন সম্ভাবনা! হাসপাতালে ১০ পরীক্ষার ফি নির্ধারণ ধীরাশ্রমে হচ্ছে দেশের বৃহত্তম কনটেইনার ডিপো ঢাকা-সিলেট চার লেন কাজ শুরু জুলাইয়ে বাড়ি পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা গৃহহীনদের ঘর উপহার মুজিববর্ষে বড় উৎসব : প্রধানমন্ত্রী ২২ বছর পর ফিরলেন মৃত ব্যক্তি, বিক্রি করলেন জমিও দেশে উদ্ভাবিত প্রথম পিসিআর টেস্ট কিট অনুমোদন নতুন ঘর পেয়ে দারুণ খুশি নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তরা বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়াল ২১ লাখ ৩০ হাজার আন্তর্জাতিক ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতায় কু.বি শিক্ষার্থী পুরস্কৃত ভাষাসৈনিক আলী তাহের মজুমদার আর নেই আ স ম মাহবুব-উল আলম লিপনের পথসভা রেপার্টরী গার্ডেন থিয়েটারের পরিবেশনায় মঞ্চস্থ হল ‘পুরোনো পালা` দেশে করোনায় মৃত্যু ৮ হাজার ছাড়ালো অপহরণের পর রাতভর যৌন নির্যাতন, ধারণ করা ভিডিও দেখিয়ে বারবার ধর্ষণ
  • রোববার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১১ ১৪২৭

  • || ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

৪৪

হোমনা পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৬ জানুয়ারি ২০২১  

কুমিল্লার হোমনা পৌরসভার মেয়র ও হোমনা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে পানি শোধনাগার স্থাপনের জন্য জায়গা কেনার নামে দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের এক নেতা। একইসঙ্গে মেয়রের বিরুদ্ধে হোমনা পৌর মার্কেটের দোকান বরাদ্দে সরকারি মূল্যের চেয়েও বেশি দামে দোকান বরাদ্দের অভিযোগ রয়েছে। কোনো ধরনের টেন্ডার ছাড়াই স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে নিকট আত্মীয়দের নামে দোকানপাট বরাদ্দ দেয়া হয়। এ নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেন পৌরসভার শ্রীমদ্দি এলাকার বাসিন্দা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আবদুল খালেক।


জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৩০শে ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন মো. নজরুল ইসলাম। দায়িত্ব নেয়ার পর ২০১৭ সালের ১লা জুন হোমনা পৌরসভার বাগমারায় পানি পরিশোধনাগার প্রকল্প স্থাপনের জন্য তিনটি দাগে ৩৯ দশমিক ৫০ শতক জায়গা কেনেন। এছাড়া ১২ দশমিক ২৫ শতক করে দু’টি জায়গা ৯০ বছরের জন্য কেনা হয়। ১৫ শতক জায়গা সাব-কবলা করে নেয়া হয়।হোমনা পৌরসভার পক্ষে মেয়র মো. নজরুল ইসলাম ৫১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে ওই জমি কেনেন। কিন্তু হোমনা পৌরসভার ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের বাজেটের পৃষ্ঠা নং ১৭ এর ৭নং ক্রমিকের ব্যয়ের খাত (ণ) এর জমি ক্রয় আয়বর্ধক কলামে ব্যয় দেখানো হয় ৮৬ লাখ টাকা। এই ক্ষেত্রে জমির টাকার বাইরে ৩৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা বেশি বরাদ্দ দেখানো হয়।


এদিকে, জমি কেনায় দুর্নীতি হয়েছে এমন অভিযোগ এনে গত ২৯শে ডিসেম্বর সমন্বিত জেলা কার্যালয় দুর্নীতি দমন কমিশন কার্যালয়ের উপ-পরিচালকের কাছে অভিযোগ করেন পৌরসভার শ্রীমদ্দি এলাকার আবদুল খালেক। এতে তিনি তদন্ত করে দুর্নীতি উদঘাটনের দাবি জানান।


এ ব্যাপারে আবদুল খালেক বলেন, ‘পৌরসভা জমি কিনবে সাব-কবলা। এই ক্ষেত্রে দু’টি দাগে ৯০ বছরের জন্য জমি ক্রয় দেখানো হয়। এটা তো হতে পারে না। এই অনিয়মের তদন্ত করার জন্য আমি অভিযোগ করেছি।’


অভিযোগ প্রসঙ্গে হোমনা পৌরসভার মেয়র মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ‘জমি কেনাবেচায় কোনো অন্যায় করিনি। আমি কোনো অন্যায় করিনি। সামনে নির্বাচন হবে, দলের একটি পক্ষ এটা নিয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।


দুদকের উপ-পরিচালক হেলাল শরিফ ছুটিতে থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। তিনি মোবাইল ফোনও ধরছেন না। তবে দুদকের দায়িত্বশীল এক সূত্র বলছে, কোনো অভিযোগ এলে আমরা সেটি যাচাই-বাছাই করে থাকি। জনসেবার কোনো খাতে দুর্নীতি হলে সেটি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হয়।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর