ব্রেকিং:
বিয়ের দিন বাড়িতে হাজির প্রথম স্ত্রী হাসপাতালে ভর্তি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ৫০ থেকে একশ শয্যায় উন্নীত হবে সব হাসপাতাল সেপটিক ট্যাংকে নেমে প্রাণ গেল ২ রাজমিস্ত্রির মজুতদারি করে কারসাজি করলে কঠোর ব্যবস্থা ইঞ্জিনে ওভার হিট, মহাখালীতে প্রাইভেটকারে আগুন ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট ফিরে পেলেন ট্রাম্প অবশেষে ঝুঁকিপূর্ণ তিন রাস্তার সংযোগস্থলে গতিরোধক স্থাপন বাঙালি বিশ্ব মোড়লদের ধার ধারে না: প্রাণিসম্পদমন্ত্রী যেসব কারণে ব্যাপক চাপ থাকবে সড়কে সুপ্রিম কোর্টের আদেশে সরকারের কোটা সংক্রান্ত পরিপত্র বলবৎ হয়েছে পানি নিষ্কাশনে ডিএনসিসির ৫ হাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মী কাজ করছে সময় টিভির সাংবাদিকদের উপর কোটা বিরোধীদের হামলা প্রধানমন্ত্রীর অন্তর্ভুক্তিমূলক সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি গাজায় ‘যুদ্ধাবসানের সময় এসেছে’: বাইডেন ন্যাটো-রাশিয়াকে সংঘাতের ব্যাপারে সতর্ক করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রাজধানীসহ সারাদেশে ভারী বৃষ্টি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুতে ইতিবাচক মিয়ানমার চীনা গণমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর
  • রোববার ১৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৬ মুহররম ১৪৪৬

১১ বছর পর ভারতের আইসিসি শিরোপা জয়

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২৪  

ফিরে আসা বোধ হয় একেই বলে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাট হাতে বড় পুঁজি পেলেও এক পর্যায়ে ম্যাচ প্রায় হেরেই বসেছিল ভারত। সেখান থেকে অবিশ্বাস্যভাবে ফিরে এসে টি-২০ বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে তারা। এটি দলটির দ্বিতীয় টি-২০ বিশ্বকাপ শিরোপা। একইসঙ্গে ১১ বছর পর আইসিসির কোনো আসরের শিরোপার স্বাদ পেল তারা।

বার্বাডোজের কেনসিংটন ওভালে সাত উইকেটে ১৭৬ রান সংগ্রহ করে ভারত। জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে আট উইকেটে ১৬৯ রানের বেশি করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। ভারতের দ্বিতীয় বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের ব্যবধান ৭ রান।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই রেজা হেনড্রিকস ও এইডেন মার্করামের উইকেট হারায় প্রোটিয়ারা। দুজনই ৪ রান করেন। কুইন্টন ডি কক ও ত্রিস্টান স্টাবস ৫৮ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন।

অল্প সময়ের ব্যবধানে দুজনই আউট হলে আবার চাপে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। স্টাবস ৩১ ও ডি কক ৩৯ রান করেন। এরপর বাইশ গজে ঝড় তোলেন হেনরিখ ক্লাসেন। তার ব্যাটে ম্যাচ হাতের মুঠোয় নিয়ে আসে প্রোটিয়ারা।

তবে ৫২ রানে ক্লাসেন ফিরলে ম্যাচ ঘুরে যায়। একপর্যায়ে ৩০ বলে ৩০ রান প্রয়োজন ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। সেখান থেকে শেষ ১২ বলে লক্ষ্য দাঁড়ায় ২০ রান। পেনাল্টিমেট ওভারে মাত্র ৪ রান আসে। ফলে শেষ ৬ বলে ১৬ রান প্রয়োজন দাঁড়ায় তাদের।

হার্দিক পান্ডিয়ার করা শেষ ওভারের প্রথম বলে সূর্যকুমার যাদবের অবিশ্বাস্য ক্যাচে পরিণত হয়ে আউট হন দক্ষিণ আফ্রিকার শেষ ভরসা মিলার। পরের তিন বলে আসে ৬ রান। পরের বল ওয়াইড দেন পান্ডিয়া।

দুই বলে ৯, এমন অবস্থায় আউট হন রাবাদা। এই বলেই ভারতের বিশ্বকাপ জয় নিশ্চিত হয়ে যায়। আনুষ্ঠানিকতার শেষ বলে ১ রান নেন নরকিয়া। ভারতের হয়ে পান্ডিয়া তিনটি এবং আর্শদীপ ও বুমরাহ দুটি করে উইকেট শিকার করেন।

আজ টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। পাওয়ার প্লে-তে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ভারত। রোহিত, পান্ট ও সূর্যকুমার যাদব কেউই বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি।

এ অবস্থায় দলের হাল ধরেন কোহলি ও আক্সার প্যাটেল। দুজনে গড়েন ৭২ রানের জুটি। ফিফটির পথে থাকা আক্সার ডি ককের অবিশ্বাস্য থ্রোতে ৪৭ করে রান আউট হন। আক্সার না পারলেও ঠিকই অর্ধশতক পূরণ করেন কোহলি।

৫৯ বলে ৭৬ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন কোহলি। অন্যপ্রান্তে ২৭ রানের ক্যামিও খেলেন দুবে। প্রোটিয়াদের হয়ে মহারাজ ও নরকিয়া দুটি এবং রাবাদা ও জানসেন একটি করে উইকেট নেন।