ব্রেকিং:
পেঁয়াজের মাধ্যমে ছড়াচ্ছে ব্যাকটেরিয়া, আক্রান্ত ৪২ দেশ বন্যায় এ পর্যন্ত ১০ হাজার ৪৮ মেট্রিক টন চাল বিতরণ হাওরে ট্রলারডুবি, ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার মৎস্য খাতে কোনো দুর্নীতি বরদাশত করা হবে না : শ ম রেজাউল `পাট খাতে যুগোপযোগী সংস্কার করা হচ্ছে` জুলাইয়ে রপ্তানি আয় বেড়েছে ১৩.৩৯ শতাংশ সব কাজ ডিজিটালি করার পথ খুলছে দেশে একদিনে আরো ৩৩ মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ২৬৫৪ বৈধ পথে বাড়ছে রেমিট্যান্স হুন্ডির দিন শেষ ঈদ ঘিরে বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ে রেকর্ড মেজর সিনহার মাকে ফোন, বিচারের আশ্বাস প্রধানমন্ত্রীর একাদশ শ্রেণির ভর্তি আবেদন রোববার থেকে শুরু করোনায় স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য আবাসনে ছয় প্রতিষ্ঠান লেবাননে বিস্ফোরণে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ১৯ সদস্য আহত ঝড়বৃষ্টি নিয়ে দুঃসংবাদ জানালো আবহাওয়া অফিস লেবাননের বৈরুতে যে কারণে ঘটল বিস্ফোরণ গোপালগঞ্জে স্কুলে ও রাস্তায় আশ্রয় নিয়েছে ৫ শতাধিক বানভাসি চীনা ভ্যাকসিনের ফলাফল সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশে ট্রায়াল শনিবার থেকে চামড়া কিনবেন ট্যানারি মালিকরা আন্তর্জাতিক বাজারে ২ শতাংশ বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম
  • বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

৫০

৩৩ বার পরীক্ষা দিয়ে অবশেষে করোনাকালে মাধ্যমিক পাস

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ৩১ জুলাই ২০২০  

করোনায় বিপর্যস্ত প্রায় পুরো বিশ্ব। মহামারি এ ভাইরাসের কারণে থমকে গেছে জনজীবন। তবে এ ভাইরাসই আশীর্বাদ হয়ে দেখা দিলো ভারতের হায়দ্রাবাদের বাসিন্দা মোহাম্মদ নুরউদ্দিনের জীবনে। টানা ৩৩ বার পরীক্ষা দিয়ে মাধ্যমিক পাশ করে সাড়া ফেলেছেন এই ব্যক্তি। করোনাকালে তার মাধ্যমিক বিজয় ঘিরে উদযাপন চলছে পরিবারে।

মাধ্যমিকে বারবার ফেল করেও দমে যাননি ৫১ বছরের মোহাম্মদ নুরউদ্দিনে। অবশেষে মাধ্যমিকে পাসের সনদ পেলেন তিনি। তবে তার

পাশ করার পেছনে রয়েছে করোনার প্রভাব। শুনতে অবাক লাগলেও এটিই সত্যি। নুরউদ্দিন নিজেই এ কথা জানিয়েছেন। কিন্তু তিনি কীভাবে করলেন এই কাজ!

মাধ্যমিক বিজয়ী এই নুরউদ্দিনের একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সেখানে তিনি ৩৩ বছর ধরে সংগৃহীত অ্যাডমিট কার্ড, মার্কশিট সাজিয়ে বসে রয়েছেন। সগর্বে দেখাচ্ছেন সেইসব। পাশাপাশি অবশেষে অর্জন করা মাধ্যমিক পাশের মার্কশিটও দেখা যায় তার হাতে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সব শিক্ষার্থীকে পাস করিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্তের জন্য তেলাঙ্গানা সরকারকে বারবার ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন তিনি।

নুরউদ্দিন জানান, ১৯৮৭ সালে প্রথমবার মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি। তবে ইংরেজিতে পাশ করতে পারেননি। তারপর থেকে গত

৩৩ বছর ধরে তিনি মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়ে আসছেন। প্রতিবারেই ইংরেজিতে অকৃতকার্য হয়েছেন তিনি। হতাশ মুখে নুরউদ্দিন বলেন,  ৩০, ৩১, ৩৩ নম্বর পেয়েও কোনোভাবেই পাশ নম্বর আসেনি তার। তবে দমে যাননি। মাধ্যমিক পাশ করার শপথ নেন তিনি। ফলে প্রতিবছরের মতো এবারেও মুক্ত বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য ৩ হাজার টাকা দিয়ে আবেদন করেন। এরপরেই শুরু হয় করোনা। কয়েকটি পরীক্ষা হওয়ার পর করোনা পরিস্থিতির জন্য বাতিল হয়ে যায় বাকি পরীক্ষা।

এ পরিস্থিতিতে তেলাঙ্গনা সরকার ঘোষণা করে যে, চলতি বছরে যারা যারা মাধ্যমিকের জন্য আবেদন করেছেন তাদের সবাইকে পাশ করিয়ে দেয়া হবে। আর এতেই হয় খুলে যায় নুরউদ্দিনের ভাগ্য। অবশেষে মাধ্যমিক পাস করে সনদ পেয়েছেন তিনি।

এর আগে ৭১ বছর বয়সী রাজস্থানের এক বাসিন্দা ৪৭ তম বারে মাধ্যমিক পাশ করে সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছিলেন।

কুমিল্লার ধ্বনি
আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর