ব্রেকিং:
তিস্তা ব্যারাজের কমান্ড এলাকায় সেচ কার্যক্রম শুরু সিকৃবির সাফল্য: অভয়াশ্রমে রক্ষা দেশীয় মাছ ফসলের ফলন বাড়ছে তরল সার উদ্ভাবনে প্রাণ ফিরেছে পর্যটনে, জমজমাট হোটেল ব্যবসা দুর্গম চরে আশার আলো ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১০৯১ গৃহহীন পরিবার পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার অক্সিজেনের ন্যূনতম মূল্য ১০০-১২০ টাকা টিকা দেওয়ার ছক প্রস্তুত উন্নয়ন দেখতে বাংলাদেশে আসতে চান বেলজিয়ামের রাজা ফিলিপ মহাকাশ চর্চার যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ শিক্ষার্থীদের বাসায় রাখা নিশ্চিত করবেন প্রতিষ্ঠান প্রধানরা নতুন ৬ মেডিকেল কলেজের মাস্টারপ্ল্যান শরীয়তপুরে ধর্ষণ মামলার মীমাংসা করতে ডেকে নিয়ে ফের গণধর্ষণ সরকারি স্কুলে ২০ জানুয়ারির মধ্যে ভর্তির নির্দেশ বিএসএফের আমন্ত্রণে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষের অনুষ্ঠানে বিজিবি ৭০০০ অ্যাম্বুল্যান্স মালিক যুক্ত হয়েছেন ৯৯৯ জরুরি সেবায় হোয়াইট হাউজের শীর্ষ পদে বাংলাদেশের জায়ান স্বাভাবিক জীবনে ৯ জঙ্গি আবিদা বলল, ভুল পথে ছিলাম বিশ্বজুড়ে করোনায় ২০ লাখের বেশি মানুষের মৃত্যু রাজনীতি ছেড়ে দেব এমপি বাহার,কিন্তু কেন ??
  • শনিবার   ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৩ ১৪২৭

  • || ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

৬১

৭ মাসের সন্তান রেখে ছোট্ট শ্যালিকাকে নিয়ে উধাও দুলাভাই

কুমিল্লার ধ্বনি

প্রকাশিত: ২২ ডিসেম্বর ২০২০  

সাত মাসের ছেলে ও স্ত্রীকে রেখে ১২ বছরের শ্যালিকাকে নিয়ে উধাও হয়ে গেছেন দুলাভাই। এতে বিপাকে পড়েছেন বড় বোন। ঘটনাটি ঘটেছে কুমিল্লার লাকসাম পৌরসভার কাদ্রা গ্রামে।

এ ঘটনায় ৫ ডিসেম্বর জামাইয়ের বিরুদ্ধে লাকসাম থানায় লিখিত অভিযোগ করেন শ্বশুর। বিষয়টি ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় শুরু হয় নানা আলোচনা-সমালোচনা।

অভিযুক্ত তোফাজ্জল হোসেন মন্টু কাদ্রা গ্রামের আবুল কাশেম মোল্লার ছেলে। দুই বছর আগে তিনি একই গ্রামে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে সাত মাস বয়সী একটি ছেলে রয়েছে।

জানা গেছে, ১২ বছরের শ্যালিকাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলেন মন্টু। ৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় পার্শ্ববর্তী এলাইচ গ্রামের নানার বাড়ি থেকে ফুসলিয়ে শ্যালিকাকে নিয়ে মন্টু অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেন। এরই মধ্যে শ্যালিকাকে মন্টু বিয়ে করেছেন বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় তোফাজ্জল হোসেন মন্টুর মা সেতারা বেগম বলেন, মেয়েটি আমার ছেলেকে বশে নিয়ে বিয়ে করেছে। আমার ছেলের কোনো দোষ নেই।

মন্টুর বাবা আবুল কাশেম মোল্লা বলেন, এটি কোনো ঘটনাই না। বিষয়টি গ্রামের সরদার-মাতবররা মীমাংসা করবেন। তার স্ত্রী বলেন, সাত মাসের শিশুর ভবিষ্যত নিয়ে আমি চিন্তিত। আমি আমার স্বামীকে চাই।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা লাকসাম থানার এসআই মনোজ কান্তি কুরি বলেন, মেয়েটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

লাকসাম থানার ওসি মো. নিজাম উদ্দিন জানান, অভিযোগ তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

কুমিল্লার ধ্বনি
কুমিল্লা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর